Breaking News

করোনার ওষুধ তৈরি প্রকল্পে মুসলমান বিজ্ঞানীকে প্রধান করলেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনাভাইরাসের ওষুধ তৈরির প্রকল্পের প্রধান করেছেন একজন মুসলিম বিজ্ঞানীকে।

‘অপারেশন ওয়ার্প স্পিড’ নামক এ প্রকল্পের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে মরক্কো বংশোদ্ভূত মুসলিম আমেরিকা মুন্সেফ মোহাম্মদ স্লায়োইকে।

হোয়াইট হাউসে শুক্রবার বিকালে এ নিয়োগ ঘোষণাকালে স্লায়োইকে ‘উৎপাদনে এবং বস্তুত ভ্যাকসিন গঠনের ক্ষেত্রে বিশ্বের অন্যতম সম্মানিত পুরুষ’ হিসেবে বর্ণনা করেন ট্রাম্প।

ট্রাম্প বলেন, অপারেশন ওয়ার্প স্পিডের প্রধান বিজ্ঞানী হবেন ড. মুন্সেফ স্লায়োই।

তিনি একজন বিশ্ববিখ্যাত রোগ প্রতিরোধ বিশেষজ্ঞ। তিনি প্রাইভেট সেক্টরে কাজ করার সময় ১০ বছরে ১৪টির মতো ওষুধ তৈরিতে সহায়তা করেছেন।

আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে প্রকাশ, মার্কিন সেনাবাহিনীর ম্যাটারিয়াল কমান্ডের অধিনায়ক জেনারেল গুসতব পারনার নেতৃত্বাধীন একটি দলকে সহযোগিতা করবেন মুন্সেফ স্লায়োই। এ দলটি যত দ্রুত সম্ভব মারণভাইরাস করোনার ওষুধ তৈরিতে কাজ করছে।

এদিকে, বার্তা সংস্থা এপির খবরে প্রকাশ, ওই প্রকল্পে কাজের বিনিময়ে কোনো বেতন নেবেন না স্লায়োই।

স্লায়োইর পরিচয় সম্পর্কে জানা গেছে, তিনি ১৯৫৯ সালে মরক্কোর আগাদিরে জন্ম নেন। ১৭ বছর বয়সে তিনি দেশ ত্যাগ করেন।

গ্রাজুয়েশন লাভের পর বেলজিয়ামের ইউনিভার্সিটি লিবরে ডি ব্রুক্সেলেস থেকে আণবিক জীববিজ্ঞান ও রোগ প্রতিরোধ তত্ত্বের ওপর ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন।

এরপর হারভার্ড মেডিক্যাল স্কুল ও বোস্টনের টাফটস ইউনিভার্সিটি স্কুল অব মেডিসিন থেকে পোস্ট ডক্টরাল পড়াশোনা শেষ করেন।

তিনি ৩০ বছর বিশ্ববিখ্যাত গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লিন (জিএসকে) কোম্পানির ওষুধ শাখার প্রধান ছিলেন।

রোগ-প্রতিরোধ বিদ্যার উপর তার ১০০টির বেশি প্রকাশনা রয়েছে।

২০১৫ সালে তিনি ম্যালেরিয়ার ভ্যাকসিন তৈরিতে বিশ্বে প্রথম ইউরোপিয়ান অনুমোদন পান।

ট্রাম্প অপারেশন ওয়ার্প স্পিডে তাকে নিযুক্তির আগে সর্বশেষ তিনি বাইয়োটেক কোম্পানি মডার্নার বোর্ড থেকে গত সপ্তাহে তিনি পদত্যাগ করেন।

তার নিয়োগকে ‘বিশেষ সম্মান’ হিসেবে উল্লেখ করে স্লায়োই বলেন, এর মাধ্যমে তিনি মহামারি মোকাবিলায় নিজ দেশ ও বিশ্বকে সেবা করার সুযোগ পেলেন।

সিয়াসাত ডেইলি/dailynayadiganta

About admin

Check Also

মুসলমানদের আজানে শুধু শব্দ দূষণই হয়না বরং মানুষের অসুবিধাও হয়

ভারতের উত্তর প্রদেশে শব্দ দূষণের কারণ হিসেবে আজান, অখন্ড রামায়ন, কীর্তন, কাওয়ালি প্রভৃতিকে দায়ি করেছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *