শিশু পুত্রকে বালতির পানিতে চু’বিয়ে মা’র’ল বাবা

রাতের বেলায় শিশুটিকে কোলের পাশে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন মা (মুন্নি আক্তার) খাটের আরেক পাশে ঘুমিয়ে ছিলেন শিশুটির নানী।
এদিকে গত দুদিন আগে শ্বশুর বাড়িতে আসা শিশুটির বাবা(বিজয় হাসান) পাশের রুমেই ঘুমিয়েছিলেন।

ভোর রাতের কোন এক সময় মায়ের কোল থেকে কৌ’শলে শিশুপুত্রকে তুলে নিয়ে বারান্দায় বালতিতে চু’বি’য়ে মা’রা’র অ’ভি’যোগ উঠেছে বাবার বি’রু’দ্ধে।

২৭ অক্টোবর রবিবার ভোরে গাজীপুর জেলা, শ্রীপুর পৌর এলাকার ভাংনাহাটি (সিআরসি কারখানার দক্ষিন পাশে) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নি’হ’তের নানা জানান, গত দেড় বছর আগে বিজয় হাসানের সাথে আমার মেয়ে মুন্নির বিয়ে হয়।
মা’দকা’স’ক্ত বিজয় বিয়ের পর থেকেই ছোট-খাটো বিষয় নিয়ে মুন্নিকে নানা ধরনের নি’র্যা’তন করতো।
মুন্নী গ’র্ভব’তী হওয়ার পর থেকে তার “বাচ্চার দরকার নাই” বলে প্রায়ই সময় জানাতো ‘বিজয়’। এ জন্য ডেলিভারি করানোর প্রয়োজনে আমার বাড়ীতে নিয়ে আসি।
গত ৯ অক্টোবর শ্রীপুর থানার, মাওনা ইউনিয়ন, মাদারস কেয়ার হসপিটালে সিজা’রের মাধ্যমে শিশু ‘আব্দুল্লাহর’ জন্ম হয়।

শিশুপুত্রকে ‘শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে’ নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করে।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাজমুল সাকিব জানান, খবর পেয়ে হাসপাতাল হতে শিশুটির লা’শ উদ্ধার করে ময়না’তদ’ন্তের জন্য গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় পাষা’ণ্ড পিতা বিজয়কে আ’টক করেছে শ্রীপুর মডেল থানা পুলিশ।

(ফেসবুক পাতা থেকে)

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *