ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবহারের জন্য ১০০ চীনা ড্রোন পাচ্ছে পাকিস্তান

ভারতকে সামরিক ও কূটনৈতিকভাবে ব্যস্ত রাখার লক্ষ্যে চীন পাকিস্তানে গুরুত্বপূর্ণ নজরদারি সরঞ্জাম সরবরাহ করা বাড়িয়ে দিয়েছে। আর এতে ফুটে ওঠেছে কিভাবে ভারতকে মোকাবেলা করার জন্য দেশ দুটি একে অপরকে সহযোগিতা করছে।

সাম্প্রতিক এক ঘটনায়, চীন অন্তত ১০০টি ডিজেআই নজরদারি ড্রোন দিয়েছে পাকিস্তানকে। পাকিস্তান সামরিক বাহিনী এগুলোকে তার নৌস্থাপনায় মোতায়েন করবে শত্রু (ভারতীয়) জাহাজ চলাচল নজরদারি করার জন্য।

গুয়ানদং, শেনজেনভিত্তিক দা-জিয়াং ইনোভেশন্স বা ডিজিআই উচ্চ মানসম্পন্ন নজরদারি ড্রোন তৈরীর জন্য সুপরিচিত।

সূত্র জানায়, ভারত চীনা নৌবাহিনীর বিরুদ্ধে নিজের শক্তি প্রদর্শন করার জন্য ভারত মহাসাগরে নিজেদের ইস্টার্ন ও ওয়েস্টার্ন কমান্ডের স্থাপনাগুলোর মোতায়েন বাড়িয়েছে। এই প্রেক্ষাপটেই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য পাকিস্তানকে ড্রোন দিচ্ছে চীন।

সূত্র জানায়, ধারণা করা হচ্ছে, পাকিস্তান নৌবাহিনী তাদের তোলা ছবিগুলো চীনের কাছে পাঠিয়ে দেবে। অতীতেও ড্রোন সরবরাহ করা হয়েছে। তবে তা ছিল সংখ্যায় অনেক কম।

এবার অনেক বেশি সংখ্যায় ড্রোন পাঠানোর বিষয়টি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। চীনের উদ্দেশ্য এতে বোঝা যাচ্ছে এবং ভারতের ব্যাপারে চীনা অবস্থাও এতে বোঝা যাচ্ছে।

চীন ২০১৫ সালে পাকিস্তানকে ৫টি লুং-১ ড্রোন দিয়েছিল।

সূত্র জানায়, সাম্প্রতিক ভারত-চীন উত্তেজনার আগে বেইজিংয়ে অন্তত দুজন আইএসআই কর্মকর্তা বেইজিংয়ে মোতায়েন ছিলেন।

চীনা সামরিক কৌশলবিদদের প্রয়াস বাড়ানোর জন্য গত কয়েক মাসে তাদের সংখ্যা বেড়ে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর ও সানডে গার্ডিয়ান লাইভ

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *