ফাইনাল ম্যাচ শেষে বিবাদে জড়ানোয় বাংলাদেশ ও ভারতের ৫ ক্রিকেটারকে আইসিসির শাস্তি

দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে রোববার যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশ ভারতকে হারিয়ে ট্রফি জেতার পরে মাঠে দুই দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে বিবাদের কারণে দুই দেশের পাঁচজন ক্রিকেটারকে শাস্তি দিয়েছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

এর মধ্যে তিনজন বাংলাদেশি এবং দুইজন ভারতীয় ক্রিকেটার।

ম্যাচ শেষে দুদলের ক্রিকেটারদের মাঠের মধ্যেই বাকযুদ্ধে লিপ্ত হতে এবং ধাক্কাধাক্কি ও হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায়।

বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের মধ্যে শাস্তিপ্রাপ্তরা হচ্ছেন তওহিদ হৃদয়, শামিম হোসেন এবং রাকিবুল হাসান।

এদের প্রত্যেকেই আইসিসির কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গ করেছেন এবং প্রত্যেককে ৬টি করে ডিমেরিট পয়েন্ট দেয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, ভারতের আকাশ সিং এবং রবি বিষ্ণয়কে পাঁচটি করে ডিমেরিট পয়েন্ট দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের অভিষেক দাসকে আউট করার পর ‘খারাপ ভাষা ব্যবহার, অশালীন ইঙ্গিত এবং অবজ্ঞাসূচক অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে প্রতিপক্ষকে বিবাদে উস্কানি’ দেবার অভিযোগে বিষ্ণয়কে দুটি বাড়তি ডিমেরিট পয়েন্ট দিয়েছে আইসিসি।

শাস্তিপ্রাপ্তদের অন্যতম রাকিবুল হাসান
বিষ্ণয় এবারের যুব বিশ্বকাপ টুর্নামেন্টের সবোর্চ্চ উইকেট শিকারি।

শাস্তিপ্রাপ্ত খেলোয়াড়েরা অনূর্ধ্ব ১৯ কিংবা অন্য যেকোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচে যখনই অংশ নেবেন, এই সাসপেনশন পয়েন্ট প্রযোজ্য হবে।

রোববার ৪৬ ওভারে ১৭০ রানের লক্ষ্য তাড়া করে যুব বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে বাংলাদেশ।

ম্যাচ শেষে হতাশ ভারতীয়দের সামনে যখন উদযাপনে ব্যস্ত বাংলাদেশ যুব দল, সেসময় টিভি সম্প্রচারের ক্যামেরায় দেখা যায় দুদলের খেলোয়াড়দের জটলা ও ধাক্কাধাক্কি।

মাঝখানে আম্পায়ারদের দেখা যায় দুদলের ক্রিকেটারদের শান্ত করতে।

বিষয়টি নিয়ে সোমবার বাংলাদেশ ও ভারতের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলে।
bbc bangla

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *