Breaking News

মহানবীকে নিয়ে অরুচিকর মন্তব্য শেয়ার, হিন্দু ব্যবসায়ী গ্রে’ফতার

হযরত মুহাম্ম’দ (স.) কে নিয়ে কটূক্তি করা ফেইসবুক স্ট্যাটাস শেয়ার করায় ভোলার মনুপরার এক হিন্দু মাছ ব্যবসায়ীর দোকানে হা’মলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে উত্তেজিত মু’সল্লিরা।

এ সময় ৩টি দোকান ঘর ভাঙচুর করে হা’মলাকারীরা। পরে লা’ঠিচার্জ ও ফাঁকা গু’লি ছুড়ে পু’লিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে ৬ জন আ’হত হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে পু’লিশ অ’ভিযু’ক্ত ব্যবসায়ীকে গ্রে’ফতার করেছে।শুক্রবার (১৫ মে) জুমা’র নামাজের পর মনপুরার কাউয়ারটেক চৌমহনী বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার জেরে জুমা’র নামাজের পর কিছু মু’সল্লি বি’ক্ষোভ মিছিল করে এসে শ্রীরামের মালিকানা ৩টি দোকানে ভাঙচুর চালায়। পরে পু’লিশ লার্ঠিচার্জ ও ফাকা গু’লি করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরিস্থিতি এখন পু’লিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।ও’সি আরও জানান, ঘটনা প্রকাশ পাওয়ার পর দুপুরে অ’ভিযু’ক্ত শ্রীরাম দাসকে পু’লিশ গ্রে’ফতার করেছে। তার বি’রুদ্ধে মা’মলার প্রস্তুতি চলছে।

সরকারি চাকরিজীবীদের ১৩৬০ কোটি টাকা দিচ্ছে সরকার
করো’নাকালীন সরকারি চাকুরিজীবীদের প্রণোদনা এবং আ’ক্রান্ত হয়ে মৃ’ত্যুবরণ সংশ্লিষ্ট ক্ষতিপূরণ খাতে এক হাজার ৩৬০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এর মধ্যে বেশির ভাগ অর্থ সরকারি চাকরিজীবীদের মধ্যে সেবাদানরত অবস্থায় কেউ করো’না আ’ক্রান্ত হলে বা মৃ’ত্যুবরণ করলে ক্ষতিপূরণ খাতে বরাদ্দ রাখা রয়েছে। আর বাকি অর্থ যাবে করো’নায় সেবাদানরত ডাক্তার-নার্সসহ সরকারি চাকরিজীবীদের প্রণোদনা খাতে। অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, করো’নাভাই’রাস মোকাবেলায় বিভিন্ন সরকারি কর্মক’র্তা-কর্মচারী প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কাজ করে চলেছেন। এসব চাকুরের মধ্যে রয়েছেন ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, মাঠপ্রশাসনের কর্মক’র্তা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, সশস্ত্রবাহিনীর সদস্য। তাদেরকে প্রণোদনা দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

তবে ১৪ লাখ সরকারি চাকরিজীবীর সবাই এ প্রণোদনার আওতায় আসবে কি না তা এখনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। এ ক্ষেত্রে যারা বেশি ঝুঁ’কিপূর্ণ কাজ করছেন তাদেরকেই অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে। এ জন্য একটি তালিকা করা হচ্ছে। তালিকায় প্রত্যক্ষভাবে নিয়োজিত প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের রাখা হচ্ছে।

তবে সরকারি অন্য কর্মক’র্তা এবং ব্যাংকাররা এ তালিকায় স্থান পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা কাজ করছে। বিশেষ করে ব্যাংকারদের ক্ষেত্রে অনিশ্চয়তা বেশি। কারণ তারা বর্তমানে দশ দিন অফিসে গেলে এক মাসের মূল বেতন প্রণোদনা হিসেবে পাচ্ছেন।

অন্য দিকে তালিকায় যাদের নাম থাকবে তারা দুই মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ প্রণোদনা হিসেবে পাবেন। ফেব্রুয়ারি ও মা’র্চ মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ প্রণোদনা হিসেবে দেয়া হতে পারে। আর এ জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। শিগগিরই এ অর্থ ছাড় করা হবে। এ জন্য একটি প্রজ্ঞাপনও জারি করবে অর্থ মন্ত্রণালয়।

এর আগে গত মাসে অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে একটি পরিপত্র জারি করে করো’নারোগীদের সেবাদানকারী কোনো সরকারি চাকুরে করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়ে মৃ’ত্যুবরণ করলে সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকা আর্থিক সহায়তা দেয়ার কথা উল্লেখ করা হয়। একইভাবে সেবাদান অবস্থায় করো’না পজিটিভ হলে তিনি পাবেন সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা। এ পরিপত্র চলতি বছরের ১ এপ্রিল থেকে কার্যকর বলে বিবেচিত হবে।

About admin

Check Also

মহানবী সা. এর ক;টূক্তিকা’রীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃ;ত্যুদ;ণ্ডের আইন পাস করা হক সকল আলেমগনের দাবি

ফেইসবুকে হযরত মোহাম্মাদ সা. কে কটুক্তিকারী যবিপ্রবি শিক্ষার্থী মিঠুন মন্ডলের মৃত্যুদণ্ডের দাবিতে যশোরের দড়াটানা এলাকায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *