মুসলমানদের রক্তে হাত রঞ্জিতকারী মোদিকে আসতে দেওয়া হবেনা: আল্লামা বাবুনগরী

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার সহযোগী মহাপরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, ইসলাম একমাত্র শান্তির ধর্ম। ব্যক্তি জীবন থেকে শুরু করে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডল; সর্বক্ষেত্রে ইসলাম শান্তির কথা বলে। কেবলমাত্র শাশ্বত ধর্ম ইসলাম সকল ধর্মের মানুষের জান,মাল,ইজ্জত-আব্রুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছে।

বাংলাদেশের ৯০% মানুষ মুসলমান। এদেশের মানুষ শান্তিপ্রিয়। এখানে সকল ধর্মের মানুষের সহাবস্থান ও সম্প্রীতি রয়েছে। বিভিন্ন সময়ে মোদি সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টি করে ভারতের মুসলমানদের উপর অমানবিক জুলুম করেছে,করছে। মোদি বাংলাদেশে এসে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করবে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী মোদিকে মুজিববর্ষে শান্তি প্রিয় বাংলাদেশে আসতে দেওয়া যায় না।

আজ শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪ টায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের হাটহাজারী উপজেলা শাখার ব্যবস্থাপনায় হাটহাজারী ডাক বাংলো চত্বরে ভারতে মুসলিম হত্যার প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

আল্লামা বাবুনগরী আরো বলেন, মোদি বর্তমান সময়ের ফিরআউন,সন্ত্রাসী। ভারতের নিরিহ মুসলমানদের রক্তে তার হাত রঞ্জিত। মুসলমানদের উপর রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস চালাচ্ছে। বাবরী মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণের রায় দিয়ে চরম ধৃষ্টতা দেখিয়েছে। কাশ্মীরের মুসলমানদের উপর অমানবিক জুলুম নির্যাতন করছে। মুসলমানদের রক্তে হাত রঞ্জিতকারী জালিম মোদি ৯০% মুসলিম অধ্যুষিত বাংলাদেশে আসতে পারে না।

আল্লামা বাবুনগরী বলেন,পৃথিবীর সূচনালগ্ন থেকে হক্বের সাথে মোকাবিলা করে কোনো বাতিল বিজয়ী হতে পারেনি। কিয়ামত পর্যন্ত পারবেও না। মোদি যদি মুসলমানদের উপর জুলুম নির্যাতন বন্ধ না করে, তাহলে আল্লাহ তায়া’লার পক্ষ থেকে চীনের মতো খোদায়ী গজব নেবে আসতে পারে। মজলুম মুসলমানদের বদ দুআয় জালিম মোদির ক্ষমতার মসনদ ভেঙে খানখান হয়ে যাবে।

হুশিয়ারী উচ্চারণ করে হেফাজতের মহাসচিব বলেন, মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে মোদির বাংলাদেশ আমন্ত্রণ বাতিল করতে হবে। নইলে এ দেশের লক্ষ কোটি তৌহিদি জনতা ঢাকা অবরোধ করতে বাধ্য হবে। প্রয়োজনে আকাশপথ অবরোধ করা হবে এরপরও এই মুসলমানদের রক্ত খেকো মোদিকে বাংলাদেশে আসতে দেওয়া হবে না।মোদির আগমনের কারণে দেশের অচল অবস্থা সৃষ্টি হলে এর দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে। আমরা শান্তি চাই। আশা করি সরকার জনগনের ভাষা বুঝে মোদির রাষ্ট্রীয় অতিথির আমন্ত্রণ বাতিল করবে।

আল্লামা বাবুনগরী বলেন,আমীরে হেফাজত আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেবের পরামর্শক্রমে দেশের শীর্ষ উলামায়ে কেরাম ও তৌহিদি জনতাকে সাথে নিয়ে ভারতের চলমান সঙ্কট এবং বাংলাদেশে মোদির আগমন প্রতিহত করতে কঠোর কর্মসুচি গ্রহণ করা হবে ইনশাআল্লাহ।

হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশ চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদরীসের সভাপতিত্বে ও হাটহাজারী উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা নাছির উদ্দীন মুনিরের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন আল হুদা মহিলা মাদরাসার মহাপরিচালক মাওলানা মীর মুহাম্মাদ কাসেম, মেখল মাদরাসার মাওলানা মুফতী মুহাম্মাদ আলী কাসেমী,মাওলানা নসীম ,মাওলানা নূরুল ইসলাম জাদীদ, মুফতী মাহমুদুল হাসান গুনভী, মাওলানা জাফর আহমদ, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ হাটহাজারী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জী, আল আমিন সংস্থার সেক্রেটারি আহসানুল্লাহ, মাওলানা কাজি সফিউল্লাহ, মাওলানা মাহমুদুলহাসান, মুফতী তৈয়ব, মাওলানা ইমরান সিকদার, মাওলানা আব্দুর রহীম মাওলানা কামরুল কাসেমী, মাওলানা ইকবাল মাদানী,মাওলানা হাবীবুর রহমান হাবীব, মাওলানা আসাদুল্লাহ আসাদ, শফিউল আলম, মুহাম্মাদ নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর দুআর মাধ্যমে প্রতিবাদ সমাবেশের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *