Breaking News

অসুস্থ বৃদ্ধাকে রাস্তার পাশে ফেলে গেল স্বজনরা

টাঙ্গাইলের সফিপুরের পর এবার গাজীপুর মহানগরির বড় বাড়ি এলাকায় অসুস্থ বৃদ্ধা মহিলাকে কে বা কারা রাস্তার পাশে ফেলে রেখে গেছে।

গত তিন দিন ধরে ওই বৃদ্ধা রাস্তার পাশেই পড়ে রয়েছেন। এলাকাবাসী স্থানীয় থানা ও সিটি করপোরেশনে খবর দেয়ার পরও ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধারে এখনো পর্যন্ত কোনো সংস্থা এগিয়ে আসেনি।

স্থানীয়দের ধারণা, হয়তো করোনা রোগী ভেবে বৃদ্ধার স্বজনরা তাকে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে পালিয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, গত মঙ্গলবার দুপুরের দিকে কে বা কারা প্রায় শতবর্ষী একজন অসুস্থ বৃদ্ধাকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের স্থানীয় বড়বাড়ি জয় বাংলা সড়কের মাথায় ফেলে রেখে যায়।

পরে পথচারীরা বৃদ্ধাকে পাশেই বড়বাড়ি বাসস্ট্যান্ডে একটি মার্কেটের সামনে সরিয়ে রাখেন।

গত মঙ্গলবারের পর থেকে ওই বৃদ্ধা এখনো ওই স্থানেই পড়ে রয়েছেন। অসুস্থতার কারণে তিনি কোনো কথা বলতে পারছেন না। স্থানীয়রা নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে খাবার দিলেও তিনি কোনো খাবারও খাচ্ছেন না।

স্থানীয় বাসিন্দা ইউসুফ আলী জানান, এলাকাবাসী সিটি করপোরেশনের স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও স্থানীয় থানা পুলিশকে একাধিকবার অনুরোধ করার পরও কোনো সংস্থা অসুস্থ্য বৃদ্ধাকে উদ্ধারের এগিয়ে আসেনি।

উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ ছাড়া বৃদ্ধাকে হাসপাতালে রাখতে চাইবে না এমন আশঙ্কায় এলাকাবাসীও কোনো দায়িত্ব নিতে চাচ্ছেন না। এমনকি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কায় সাধারণ মানুষ বৃদ্ধার কাছে যেতেও ভয় পচ্ছেন।

এর আগে করোনা সংক্রমণের ভয়ে গত ১৩ এপ্রিল রাতে টাঙ্গাইলের সফিপুরের একটি জঙ্গলে নারী ছেড়া সন্তানরা তাদের বৃদ্ধা মাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। ওই দিন রাত ১ টায় স্থানীয় প্রশাসন ওই মাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে। পরে হাসপাতালে ভর্তির পর তার নমুনা পরীক্ষায় জানা যায় তিনি করোনা ভাইরাসের রোগী ছিলেন না

dailynayadiganta

About admin

Check Also

ঘরের বাইরে মাস্ক পরিধানের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় দফা বিস্তার প্রতিরোধে ঘরের বাইরে মাস্ক পরিধানের জন্য জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *